পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ কত রাকাত ও কি কি

নামাজ কয় রাকাত কি কি, নামাজ কয় ওয়াক্ত, কোন নামাজ কয় রাকাত, এশার নামাজ কয় রাকাত, মাগরিবের নামাজের সময়, আসরের নামাজ কয় রাকাত, যোহরের নামাজ কয় রাকাত, ফজরের নামাজ কয় রাকাত

একজন মুসলিমের দৈনন্দিন জীবনে নামাজের গুরুত্ব অপরিসীম। নামাজ মানুষকে আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে সহায়তা করে। এর মাধ্যমে বান্দা তার প্রভুর সান্নিধ্য লাভ করতে পারে। ইমান মজবুত হয়, আত্মা পরিশুদ্ধ হয়। নামাজ একজন মুমিনকে মন্দ ও গর্হিত কাজ থেকে বিরত রাখে।

নামাজের গুরুত্ব ও ফজিলত

নামাজের গুরুত্ব সম্পর্কে রাসুল (স.) বলেছেন -
"যে ব্যক্তি মনোযোগসহ নামাজ আদায় করে, কিয়ামতের দিন ঐ নামাজ তার জন্য নুর হবে।" (তাবারানি)

কিয়ামতের দিন আল্লাহ সর্বপ্রথম নামাজের হিসাব নেবেন। রাসুলুল্লাহ (স.) বলেছেন- "কিয়ামতের দিন বান্দার কাছ থেকে সর্বপ্রথম নামাজের হিসাব নেওয়া হবে।” (তিরমিযি)

একদা হযরত মুহাম্মদ (স.) তাঁর সাথিদের লক্ষ্য করে বললেন- 
'যদি কারও বাড়ির পাশ দিয়ে একটি নদী প্রবাহিত হয় এবং কোনো লোক দৈনিক পাঁচবার ঐ নদীতে গোসল করে, তাহলে কি তার শরীরে কোনো ময়লা থাকবে?' সাহাবিগণ উত্তরে বললেন, 'না' হে আল্লাহর রাসুল! তখন মহানবি (স.) বললেন- পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ঠিক তেমনি তার (নামাজ আদায়কারীর) গুনাহসমূহ দূর করে দেয়। মহানবি (স.) আরও বলেছেন, "নামাজ হলো ইমান ও কুফরের মধ্যে পার্থক্যকারী।" (তিরমিযি)

নামাজ কত রাকাত ও কি কি

মহান আল্লাহ তা'য়ালা মুমিন-মুসলমানদের উপর দৈনিক পাঁচবার নামাজ ফরজ (আবশ্যক) করেছেন। তা হলো- ফজর, যোহর, আসর, মাগরিব ও এশা। এই পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ সর্বমোট ৪৮ রাকাত।

ফজরের নামাজ কয় রাকাত

সুবহে সাদিকের পর থেকে নিয়ে সূর্যোদয় হওয়া পর্যন্ত ফজরের নামাজের সময়। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গেই ফজরের ওয়াক্ত শেষ হয়ে যায়। 

➲ ফজরের নামাজ মোট ৪ রাকাত -

∎ ২ রাকাত সুন্নত,
∎ ২ রাকাত ফরজ।

যোহরের নামাজ কয় রাকাত

ঠিক দ্বিপ্রহরের পর সূর্য পশ্চিম আকাশে ঢলে পড়ার পর যোহরের নামাজের সময় শুরু হয়। প্রত্যেক জিনিসের ছায়ায়ে আছলি তথা মূল ছায়া ব্যতীত ওই জিনিসের দ্বিগুণ ছায়া হওয়া পর্যন্ত যোহরের নামাজের সময় বাকী থাকে। এই সময় নির্ধারণ করার একটি সহজ পদ্ধতি হলো মাটিতে কোনো লাঠি পুঁতে রেখে তার ছায়ার দিকে লক্ষ করা। যতক্ষণ পর্যন্ত দ্বিগুণ হবে না ততক্ষণ পর্যন্ত যোহরের সময় থাকবে।

➲ যোহরের নামাজ ১২ রাকাত -

∎ ৪ রাকাত সুন্নত,
∎ ৪ রাকাত ফরজ,
∎ ২ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদা, 
∎ ২ রাকাত নফল।

আসরের নামাজ কয় রাকাত

যোহরের নামাজের সময় শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আসরের নামাজের সময় শুরু হয়ে যায়। অর্থাৎ প্রত্যেক জিনিসের মূল ছায়া বাদ দিয়ে যখন ছায়া দ্বিগুণ হয়, তখনই আসরের নামাজের সময় শুরু হয়ে যায়। অতঃপর সূর্যাস্ত পর্যন্ত আসরের নামাজের সময় থাকে।

➲ আসরের নামাজ মোট ৮ রাকাত -

∎ ৪ রাকাত সুন্নত,
∎ ২ রাকাত ফরজ।

মাগরিবের নামাজ কয় রাকাত

সূর্য ডোবার পর পর'ই মাগরিবের নামাজের সময় শুরু হয়ে যায় এবং পশ্চিম আকাশে সূর্যের লালিমা শেষ হওয়া পর্যন্ত মাগরিবের নামাজ পড়া যায়।

➲ মাগরিবের নামাজ মোট ৭ রাকাত -

∎ ৩ রাকাত ফরজ,
∎ ২ রাকাত সুন্নত,
∎ ২ রাকাত নফল।

এশার নামাজ কয় রাকাত

মাগরিবের নামাজের সময় শেষ হলেই এশার নামাজের সময় শুরু হয়। পশ্চিম আকাশের লাল আভা দূর হওয়ার পর আকাশ প্রান্তে যে সাদা আভা চোখে পড়ে তা বিলুপ্ত হওয়ার পরই মূলত ইশার নামাজের সময় শুরু হয়। 

➲ এশার নামাজ মোট ১৭ রাকাত -

∎ ৪ রাকাত সুন্নত,
∎ ৪ রাকাত ফরজ,
∎ ২ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদা,
∎ ২ রাকাত নফল,
∎ ৩ রাকাত বিতর,
∎ ২ রাকাত হালকি নফল।

মন্তব্য করুন

নবীনতর পূর্বতন